সাফিনা পার্ক,রাজশাহী,সাফিনা পার্ক safina park,নাইসপার্ক,আমাদেররাজশাহী,পিকনিক,পার্ক,ঈদ জার্নি,গোদাগাড়ী রাজশাহী,নাইসগার্ডেনপার্ক,উৎসব পার্কে একদিন,গোদাগাড়ী সাফিনা পার্ক

”সাফিনা পার্ক” পরিচিতি

সাফিনা পার্ক(Safina Park) ২০১২ সালে ব্যক্তিগত উদ্যোগে গড়ে তোলা হয়েছে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার দ্বিগ্রাম খেজুরতলায় প্রায় ৪০ বিঘা জায়গার উপর। প্রায় ৯ কিলোমিটার দূরত্ব সাফিনা পার্ক গোদাগাড়ী থেকে। ২ বছর বন্ধ থাকার পর ২০১৮ সালে পুনরায় আবার চালু করা হয়েছিলো উপজেলার একমাত্র এই বিনোদন কেন্দ্রটি। সাফিনা পার্কটি নতুন করে আয়োজনে সাজানো সব বয়সী পর্যটকদের কাছে চিত্তবিনোদন ও পিকনিক স্পট হিসেবে বর্তমানে বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

ফুল, ফল ও ঔষধি নানারকম গাছ দিয়ে ঘেরা সাফিনা পার্কের ভিতরে অবস্থিত দৃষ্টিনন্দন ফোয়ারা ও কৃত্রিম ভাবে গঠনকৃত বিভিন্ন পশু পাখির আকর্ষণীয় শিলারুপ। শিশুদের বিনোদনের জন্য রয়েছে দোলনা, ট্রেন, নাগরদোলা, থ্রিডি সিনেমা এবং কিডস স্পোর্টস জোন। পার্কের ভিতরে অবস্থিত দুইটি লেকে নৌকায় ঘুরে বেড়াতে পারবেন আপনারা চাইলে। মাছ ধরতে পারবেন ইচ্ছা করলে তবে তার জন্য অনুমতি নিতে হবে। সাফিনা পার্কে ২ টি পিকনিক স্পট, কনফারেন্স রুম এবং মঞ্চের ব্যবস্থা করা আছে যেকোন অনুষ্ঠানের আয়োজনের ক্ষেত্রে। তাছাড়া পর্যটকদের কেনাকাটার সুবিধার্থে পার্কের ভিতরে একটি মার্কেট তৈরি করা রয়েছে।

সোর্সঃ উইকিপিডিয়া

”সাফিনা পার্কে” সময়সূচী এবং প্রবেশ ফী

প্রতিদিন সাফিনা পার্কে সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত প্রবেশ করতে পারবেন। জনপ্রতি ২০ টাকা দিয়ে টিকেট কেটে প্রবেশ করতে হয়।

”সাফিনা পার্ক” কিভাবে যাবেন

প্রথমে রাজশাহী আসতে হবে আপনাকে সাফিনা পার্ক(Safina Park) যেতে হলে। ঢাকা থেকে সড়ক, রেল ও আকাশ পথে রাজশাহী যাওয়া যায়। ঢাকার গাবতলী, কল্যাণপুর এবং আব্দুল্লাপুর থেকে গ্রিনলাইন, দেশ ট্র্যাভেলস শ্যামলী, হানিফ, বাবলু এন্টার প্রাইজের মতো এসি বা নন এসি বাসে করে রাজশাহী যেতে পারবেন। বাস অনুযায়ী জনপ্রতি সীট ভাড়া ৫০০ থেকে ১০০০ টাকা করে পড়বে।

ট্রেনে যেতে চাইলে কমলাপুর ও বিমানবন্দর রেলষ্টেশন থেকে সিল্কসিটি, ধুমকেতু, বনলতা বা পদ্মা এক্সপ্রেসে করে রাজশাহী যেতে পারবেন। জনপ্রতি ট্রেন টিকেটের মূল্য শ্রেণী ভেদে ৩৭৫ থেকে ৮৬৩ টাকা। তাছাড়া ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বেশকিছু এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে করেও চাইলে রাজশাহী যেতে পারবেন। যেমনঃ বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, ইউনাইটেড এয়ার।

স্থানীয় বিভিন্ন পরিবহণ সার্ভিস যেমন বাস, সিএনজি অথবা অটোরিকশায় করে রাজশাহী শহর থেকে গোদাগাড়ীর জিরো পয়েন্ট হতে প্রায় ৯ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত সাফিনা পার্কে পৌঁছাতে পারবেন।

”সাফিনা পার্ক” কোথায় থাকবেন

সাফিনা পার্কের অবস্থিত বিলাসবহুল রেস্ট হাউজে থাকতে চাইলে আগে থেকে বুকিং করে যেতে হবে। তাছাড়া রাজশাহী শহরে রাতে থাকার জন্য বেশকিছু হোটেল রয়েছে। তাদের মধ্যে হোটেল গ্রিন সিটি ইন্টারন্যাশনাল, হোটেল স্টার ইন্টারন্যাশনাল, হোটেল নাইস ইন্টারন্যাশনাল, মুক্তা ইন্টারন্যাশনাল ও পর্যটন কর্পোরেশনের মোটেল সহ বেশকিছু ভাল মানের আবাসিক হোটেল উল্লেখযোগ্য।

সাফিনা পার্ক,রাজশাহী,সাফিনা পার্ক safina park,নাইসপার্ক,আমাদেররাজশাহী,পিকনিক,পার্ক,ঈদ জার্নি,গোদাগাড়ী রাজশাহী,নাইসগার্ডেনপার্ক,উৎসব পার্কে একদিন,গোদাগাড়ী সাফিনা পার্ক

”সাফিনা পার্কে” কি খাবেন

সাফিনা পার্কের রেস্টুরেন্ট অবস্থিত চাইলে সেখানে খাওয়া দাওয়ার করতে পারবেন। তাছাড়া গোদাগাড়ীতে তৈমুর, বিসমিল্লাহ ও রহমতুল্লা হোটেলের মতো কিছু সাধারণ মানের খাবারের হোটেল খুঁজে পেয়ে যাবেন চাইলে সেখানেও খেয়ে নিতে পারবেন। ফাস্টফুড, চাইনিজ, বাংলা ইত্যাদি বিভিন্ন ধরণের খাবার রাজশাহী শহরের রেস্তোরাঁগুলোতে ব্যবস্থা করা আছে। আমের মৌসুমে রাজশাহীতে গেলে অবশ্যই আম বাগান থেকে ঘুরে এসে আমের স্বাদ নিয়ে আসবেন।

”সাফিনা পার্কের” অন্যান্য দর্শনীয় স্থানগুলো

সাফিনা পার্কে যাওয়ার পথে খেজুরতলা থেকে রাস্তার দুইপাশে সবুজের সমাহার ও পদ্মা নদীর ধারে বসে সূর্যাস্ত দেখার দৃশ্য বেশ আকর্ষণী, তাই যদি এই দৃশ্য উপভোগ করতে চান তাহলে যাওয়ার আগে ওইরকম সময় ও সুযোগ করে যাবেন। রাজশাহীর অন্যান্য দর্শনীয় স্থানের মধ্যে শিশু পার্ক, বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘর,কেন্দ্রীয় চিড়িয়াখানা, বাঘা মসজিদ ও পুটিয়া রাজবাড়ী অন্যতম।

বিশেষ নিবেদন

বাংলাদেশের যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের দেশের সম্পদ, আমাদের সম্পদ। এইসব স্থানগুলোর সৌন্দর্য্য রক্ষা করা আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য। তাই এইসব স্থানের প্রাকৃতিক অথবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করবনা যাতে করে এইসব স্থানগুলোর সৌন্দর্য্য নষ্ট হয়ে যায়। আমারা বাঙালি তাই আমরা কখনই চাইবনা আমাদের দেশের সৌন্দর্য্য নষ্ট হয়ে যাক। আমরা নিজেরা সৌন্দর্য্য উপভোগ করি এবং সবাইকে উপভোগ করার সুযোগ করে দেই। এই দেশ আমাদের, এই দেশের সব কিছুই আমাদের তাই দেশের প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।

বিডি ট্রাভেল গাইড সব সময় চেষ্টা করবে আপনাদের কাছে সঠিক তথ্য প্রদান করতে। ভালো লাগলে শেয়ার করুন সবার সাথে এবং আমাদের সাথে থাকার অনুরুধ রইল। ধন্যবাদ।।।

হ্যাপি ট্যুর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here